মেনু নির্বাচন করুন

শাস্তিমূলক ব্যবস্থা

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৭০ ধারায় প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করে থাকে।এ প্রশাসনিক ব্যবস্থায় শাস্তির আওতায় মূলত আর্থিক জরিমানা, ব্যবসার লাইসেন্স বাতিল, ব্যবসায়িক কার্যক্রম সাময়িক বা স্থায়ীভাবে স্থগিতকরণ ইত্যাদি বিষয় অন্তর্ভূক্ত। ২০২০-২১ অর্থবছরে এ কার্যালয় কর্তৃক ১৫৫টি অভিযানের মাধ্যমে ৪০৩টি প্রতিষ্ঠানকে ২৩,৪১,০০০/- (তেইশ লক্ষ একচল্লিশ হাজার) টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করেছে। এছাড়াও ভোক্তাদের নিকট থেকে প্রাপ্ত ১৫৬টি অভিযোগ নিষ্পত্তি করে ১,৩৭,৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়।  যেখানে অভিযোগকারীরা আইনের ৭৬(৪)ধারা মতে প্রণোদনা হিসাবে জরিমানার ২৫% হিসেবে ৩৪,৩৭৫ টাকা পান।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৭০ ধারায় প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করে থাকে।এ প্রশাসনিক ব্যবস্থায় শাস্তির আওতায় মূলত আর্থিক জরিমানা, ব্যবসার লাইসেন্স বাতিল, ব্যবসায়িক কার্যক্রম সাময়িক বা স্থায়ীভাবে স্থগিতকরণ ইত্যাদি বিষয় অন্তর্ভূক্ত। ২০২০-২১ অর্থবছরে এ কার্যালয় কর্তৃক ১৫৫টি অভিযানের মাধ্যমে ৪০৩টি প্রতিষ্ঠানকে ২৩,৪১,০০০/- (তেইশ লক্ষ একচল্লিশ হাজার) টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করেছে। এছাড়াও ভোক্তাদের নিকট থেকে প্রাপ্ত ১৫৬টি অভিযোগ নিষ্পত্তি করে ১,৩৭,৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়।  যেখানে অভিযোগকারীর আইনের ৭৬(৪)ধারা মতে জরিমানার ২৫% হিসেবে ৩৪,৩৭৫ টাকা প্রদান করা হয়।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৭০ ধারায় প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করে থাকে।এ প্রশাসনিক ব্যবস্থায় শাস্তির আওতায় মূলত আর্থিক জরিমানা, ব্যবসার লাইসেন্স বাতিল, ব্যবসায়িক কার্যক্রম সাময়িক বা স্থায়ীভাবে স্থগিতকরণ ইত্যাদি বিষয় অন্তর্ভূক্ত। ২০২০-২১ অর্থবছরে এ কার্যালয় কর্তৃক ১৫৫টি অভিযানের মাধ্যমে ৪০৩টি প্রতিষ্ঠানকে ২৩,৪১,০০০/- (তেইশ লক্ষ একচল্লিশ হাজার) টাকা জরিমানা আরোপ ও আদায় করেছে। এছাড়াও ভোক্তাদের নিকট থেকে প্রাপ্ত ১৫৬টি অভিযোগ নিষ্পত্তি করে ১,৩৭,৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়।  যেখানে অভিযোগকারীর আইনের ৭৬(৪)ধারা মতে জরিমানার ২৫% হিসেবে ৩৪,৩৭৫ টাকা প্রদান করা হয়।